মঙ্গলবার, ১৩ই আষাঢ়, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ : ২৭শে জুন, ২০১৭ ইং

ছেলের জন্মদিনের দিনই ঘর পুড়লো সালমার

পাঁচ পেরিয়ে রোববার ছয়ে পা দিয়েছে সালমার ছেলে সাজিদ। আর সেই দিনই আগুনের লেলিহান শিখায় সালমার ঘরের সব কিছু পুড়ে ছাই। রোববার (১১ ডিসেম্বর) দিনগত রাত একটার দিকে আগুন লাগে রাজধানীর মহাখালী সাততলা বস্তিতে। সেই আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে যায় সালমার সংসারের গত আট বছর ধরে তিল তিল করে গড়ে তোলা সব আসবাবপত্র, নগদ টাকা।

আগুন লেগেছে কানে আসতেই কোনো রকমে ছেলেকে নিয়ে বেরিয়ে আসেন সালমা। কাঁদতে কাঁদতে তিনি বলেন, ‘পরনের কাপড়টা ছাড়া আর কিছ নিয়ে বের হইতে পারি নাই। কী ছিল না আমার ঘরে! খাট, টেলিভিশন, ফ্রিজ, সোকেস সবই ছিল। কিন্তু এখন সব পুইড়া ছাই। তাই আমি কৈ যামু? আমার আর কিছুই রইলো না।’
সালমার স্বামী দেলোয়ার পেশায় গাড়িচালক হওয়ায় অগ্নিকাণ্ডের সময় বাসায় ছিলেন না।

রাত আড়াইটা নাগাদ মহাখালীর সাততলা বস্তিতে লাগা আগুন নেভাতে সক্ষম হন ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা। আগুন নেভাতে ফায়ার সার্ভিসের ১৭টি ইউনিট ঘটনাস্থলে কাজ করেছে বলে জানান ফায়ার সার্ভিসের উপ-পরিচালক দেবাশীষ বর্ধন।

দেবাশীষ বলেন, এখনই বলা যাচ্ছে না আগুনের সূত্রপাত কীভাবে। তবে শর্টসার্কিট বা চুলা থেকে আগুন ছড়িয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। তদন্ত করে দেখা হবে। আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে আমাদের ২৫ মিনিট সময় লেগেছে। কাজ করেছে ১৭টি ইউনিট।