রবিবার, ৭ই ফাল্গুন, ১৪২৩ বঙ্গাব্দ : ১৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ইং

নোয়াখালীতে ধর্ষনের চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে লুটপাটঃ অগ্নিসংযোগ

মোঃ আবদুল্যাহ রানা, নোয়াখালী প্রতিনিধি

জেলার সুবর্ণচর উপজেলায় শিশু সন্তানকে অস্ত্রের মুখে জিম্মী করে ধর্ষনের চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে লুটপাট ও অগ্নিসংযোগ করে স্থানীয় ক্যাডার ও ভাড়াটিয়া ভূমিদস্যুরা। এব্যপারে চর জব্বার থানায় জিডি করা হয়, জিডি নং- ০৩/২০১৭ইং। ঘটনাটি ঘটে বৃহস্পতিবার রাত ১২টায় ১নং চর জব্বর ইউনিয়নের চর পানা উল্যাহ গ্রামের কালন মিয়ার বাড়ীতে।

 

স্বরে জমিনে ও অভিযোগ সূত্রে জানাযায় একই গ্রামের আইয়ুব আলী ওরফে কালন মিয়ার স্ত্রী হোছনেয়ারা বেগমের ক্রয়কৃত ৭৩৩নং খতিয়ানের ৭৪শতাংশ ভূমি জবর দখল করার চেষ্টা করে আসছে চর পানা উল্যাহ গ্রামের মৃত আবদুল মালেকের পুত্র নুর ইসলাম ওরফে আবুল কালাম (৪৫), নুর ইসলামের পুত্র ফারুক হোসেন (২৪), আনোয়ার (২০), মৃত আবদুল মালেক মাঝির পুত্র রুহুল আমিন (৪০), আবুল কাশেম এর পুত্র নুর উদ্দিন (২৫), মৃত রুহুল আমিন ব্যাপারী ছেলে আবুল কাশেম (৪০), মৃত নুরুজ্জামান এর ছেলে মোস্তফা (৪০) সহ অজ্ঞাত কিছু ভূমীদস্যুরা। দীর্ঘদিন থেকে ঐ সকল দস্যুরা অস্ত্র সস্ত্র সহকারে ভূমী দখল করতে এলে স্থানীয় এলাকাবাসীর বাধায় দখল করতে না পেরে হত্যা, গুম, দর্ষনের হুমকি দিতে থাকে।

 

এতে হোছনেয়ারা বেগম বাদী হয়ে চর জব্বার থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেন। পরে অভিযুক্তরা ক্ষীপ্ত হয়ে ঘটনার দিন রাত ১২টায় আইয়ুব মিয়ার ঘরে ঢুকে তার পুত্র বধু ও ৬মাসের শিশু সন্তান রিফাত হোসেনকে অস্ত্রের মুখে জিম্মী করে জামালের স্ত্রী হালিমা আক্তার (২৪), তার ছোট বোন খালেদা আক্তার (২০) কে ধর্ষন করার জন্য দস্তাদস্তি করে। এতে দারে শৌর চিৎকারে আশ পার্শ্বের লোকজন এগিয়ে আসলে অভিযুক্তরা শৌকেছ ভেঙ্গে নগদ ৫০হাজার টাকা এবং ৩ভরি স্বর্ণঅংলকার নিয়ে যায়।

 

যাওয়ার সময় পেট্টল দিয়ে পুরো ঘরে আগুন লাগিয়ে দেয়ার পর অভিযুক্তরা পালিয়ে যাওয়ার সময় গ্রামবাসী তাদের ধাওয়া করে। গ্রাম বাসীদের সহযোগীতায় ঘরে থাকা হালিমা আক্তার ও খালেদা আক্তার এবং শিশু রিফাত হোসেনকে উদ্ধার করতে পারলেও মুহুত্তেই পুরো ঘর পুড়ে চাই হয়ে যায়।

 

এলাকাবাসী জানান নুর ইসলাম ওরফে আবুল কালাম দীর্ঘদিন থেকে এলাকায় নানা অ-সামজিক কাজে লিপ্ত রয়েছেন। এলাকায় তাদের প্রভাব থাকার ভয়ে কেউ মুখ খুলেনা। এব্যাপারে আবুল কালামের সাথে যোগাযোগ করতে চাইলে তাকে পাওয়া যায়নি। কোটে একটি মামলার প্রস্তুতি চলছে। বর্তমানে পুরো পরিবারটি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। তারা নিরাপত্তার জন্য স্থানীয় প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন

আপনার মতামত দিনঃ

বার্তা কক্ষ মেইল:

news.crimewatchbd24@gmail.com

বার্তা কক্ষ মুঠোফোন:

+৮৮ ০১৯ ২০০ ৯৯২৮৮

© ২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত "ক্রাইম ওয়াচ"