বৃহস্পতিবার, ৬ই মাঘ, ১৪২৩ বঙ্গাব্দ : ১৯শে জানুয়ারি, ২০১৭ ইং

১০ মেডিকেলকে কোটি টাকা করে জরিমানার পূর্ণাঙ্গ রায়

ক্রাইম ওয়াচ, ঢাকা 

২০১০ সালে মেডিকেল কলেজ(এমবিবিএস)ভর্তি সংক্রান্ত আইন করা হলেও তার জন্য সুনির্দিষ্ট কোন নীতিমালা বা গাইড লাইন তৈরি করা হয়নি। মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের ঘোষণা করা রায়ে এ কথা বলা হয়েছে।

এ সংক্রান্ত সরকারি সিদ্ধান্ত উপেক্ষা করে শিক্ষার্থী ভর্তি করায় ১০ বেসরকারি মেডিকেল কলেজের প্রত্যেককে ১ কোটি টাকা করে জরিমানা করে আপিল বিভাগের দেয়া ৩৭ পৃষ্ঠার পূর্ণাঙ্গ রায় বুধবার সুপ্রিম কোর্টের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়।

পূর্ণাঙ্গ রায়ের বিভিন্ন পর্যবেক্ষণে বলা হয়, মেডিকেল কলেজ কী পদ্ধতিতে চলবে সে সংক্রান্ত বিষয়ে আদালত হস্তক্ষেপ করতে পারে না, বিশ্ববিদ্যালয়ের বেঁধে দেওয়া শর্ত অনুযায়ী সরকারি-বেসরকারি মেডিকেল কলেজকে চলতে হবে।

রায়ে আরো বলা হয়, দেশে এবং দেশের বাইরে কোনো সরকারি-বেসরকারি মেডিকেল বা ডেন্টাল মেডিকেল কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের বেঁধে দেওয়া নীতির বাইরে যেতে পারবে না।

এক কোটি টাকা করে জরিমানা করা ১০ বেসরকারি মেডিকেল কলেজ হলো- শমরিতা মেডিকেল কলেজ, সিটি মেডিকেল কলেজ, নাইটিঙ্গেল মেডিকেল কলেজ, জয়নুল হক শিকদার মেডিকেল কলেজ, ঢাকা সেন্ট্রাল ইন্টারন্যাশনাল মেডিকেল কলেজ, ইস্ট-ওয়েস্ট মেডিকেল কলেজ, তাইরুন নেছা মেডিকেল কলেজ, আইচি মেডিকেল কলেজ, কেয়ার মেডিকেল কলেজ ও আশিয়ান মেডিকেল কলেজ।

প্রসঙ্গত, গত ২১ আগস্ট ভর্তি পরীক্ষার নম্বরের শর্ত পূরণ না হওয়ার পরও ১৫৩ শিক্ষার্থীকে ভর্তি করায় দশ বেসরকারি মেডিকেল কলেজকে এক কোটি টাকা করে জরিমানা করেন আপিল বিভাগ।

প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বাধীন ৪ বিচারপতির আপিল বেঞ্চ এই রায় ঘোষণা করেন। রায়ে ১০ দিনের মধ্যে ১০ মেডিকেল কলেজকে টাকা পরিশোধের নির্দেশ দেয়া হয়। আজ ওই রায়ের পূর্ণাঙ্গ অনুলিপি প্রকাশ করা হয়।

রায়ে বলা হয়, ধার্যকৃত টাকার অর্ধেক পাবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। বাকি অর্ধেক পাবে কিডনি ফাউন্ডেশন ও লিভার ফাউন্ডেশন।

আপনার মতামত দিনঃ

© ২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত "ক্রাইম ওয়াচ"