বুধবার, ৩রা কার্তিক, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ : ১৮ই অক্টোবর, ২০১৭ ইং

কুমিল্লা সিটিতে আ. লীগের প্রার্থী আফজল কন্যা সীমা

জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন (কুসিক) নির্বাচনে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ থেকে নৌকা প্রতীক পেলেন কুমিল্লার বর্ষীয়ান আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাড. আফজলের মেয়ে ও সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আঞ্জুম সুলতানা সীমা।

রোববার রাতে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে গণভবনে অনুষ্ঠিত দলের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের সভায় সীমাকে মনোনয়ন দেয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

অপরদিকে একই দিন সন্ধ্যায় বিএনপি চেয়ারপার্সনের কার্যালয় থেকে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর কর্তৃক স্বাক্ষরিত মনোনয়নপত্র গ্রহণ করেন কুসিকের সদ্য সাবেক মেয়র মনিরুল হক সাক্কু।

দলীয় প্রতীকে এবার প্রথমবারের মত হতে যাচ্ছে কুসিকের ২য় নির্বাচন। তাই আওয়ামীগ ও বিএনপির নেতৃত্বাধীন দুই জোটই নিজ নিজ প্রার্থীর পক্ষে ভোটের মাঠে লড়াইয়ে নামবে, সরগরম হয়ে উঠছে কুমিল্লার রাজনীতির মাঠ।

জানা যায়, বিএনপি থেকে সাবেক মেয়র মনিরুল হক সাক্কু অনেকটা বিনা বাধায় মনোনয়ন লাভ করতে সক্ষম হলেও ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন পেতে আঞ্জুম সুলতানা সীমাকে দলের হাফ ডজনেরও অধিক প্রার্থীর সঙ্গে মনোনয়ন যুদ্ধে নামতে হয়েছে।

আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশীর তালিকায় ছিলেন, কুমিল্লা জেলা পরিষদের সাবেক প্রশাসক ও কেন্দ্রীয় কৃষকলীগের সহসভাপতি আলহাজ মো. ওমর ফারুক, জেলা যুবলীগের সাবেক সহসভাপতি আরফানুল হক রিফাত, আওয়ামী লীগ নেতা শফিকুল ইসলাম শিকদার, কবিরুল ইসলাম শিকদার, নূর উর রহমান মাহমুদ তানিম ও জিএস জাকির হোসেন।

কুসিকের প্রথম নির্বাচনে সীমার বাবা ও অধ্যক্ষ আফজল খান অ্যাড.কে পরাজিত করে বিএনপির মনিরুল হক সাক্কু বিজয়ী হয়েছিলেন।

দলীয় কোন্দলের মাঝেও এবার বাবার সেই পদে মনোনয়ন পেলেন সীমা। তাই সীমা এ নির্বাচনকে দল ও পরিবারের সন্মান পুনরুদ্ধারের চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছেন বলে জানিয়েছেন। এটা আওয়ামী লীগের জন্য অগ্নিপরীক্ষাও বটে।

দলীয় মনোনয়ন লাভের পর সীমা বলেন, ‘আজ আমি সীমাহীন আনন্দিত, আওয়ামী লীগের জন্য আমার বাবা ও পরিবারের অনেক ত্যাগ রয়েছে। দলের সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাকে মনোনয়ন দিয়েছেন এ জন্য আমি দলের সভানেত্রী, দলের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ এবং জেলার নেতৃবৃন্দের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।’

সীমা আরো বলেন, ‘সব দলেই মনোনয়নের প্রতিযোগিতা থাকে, আওয়ামী লীগেও ছিল, আশা করি নেত্রীর এ সিদ্ধান্তের প্রতি সন্মান জানিয়ে সবাই মানঅভিমান ভুলে নৌকা প্রতীকের জন্য ঐক্যবব্ধ হয়ে মাঠে কাজ করবে।

বার্তা কক্ষ মেইল:

news.crimewatchbd24@gmail.com

বার্তা কক্ষ মুঠোফোন:

+৮৮ ০১৯ ২০০ ৯৯২৮৮

© ২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত "ক্রাইম ওয়াচ"

Design & Devaloped BY Popular-IT.Com