মাস্কের ভুল ব্যবহার গলা ব্যাথার কারণ!

0
29

অনলাইন ডেস্ক , ক্রাইম ওয়াচ ।

করোনা থেকে বাঁচার প্রথম শর্ত হলো মাস্ক ব্যবহার করা। বাতাসের সাথে যে জীবাণু থাকে মাস্ক ব্যবহার করলে ওই জীবাণু আমাদের শরীরে প্রবেশ করতে পারে না। অনেক গবেষণায় দাবি করা হয়েছে মাস্ক পরলে সংক্রমণের ঝুঁকি শতকরা ৫০ ভাগ কমে যায়। এজন্যই বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনায় বাড়ির বাইরে বের হলেই মাস্ক পরার উপর কড়াকড়ি নির্দেশ  আরোপ করা হয়েছে। বেশিরভাগ মানুষ মাস্ক পরে অস্বস্তিতে ভোগে। স্কিনের সমস্যা,গ্লাস ঘোলা যাওয়া এইটা খুব স্বাভাবিক হয়ে দাড়িয়েছে এখন। তবে মাস্ক পরার নতুন আরেকটি সমস্যা যোগ হয়েছে তা হলো গলা ব্যাথা।

মাস্ক অনেকক্ষণ পরে থাকার গলা ব্যাথা হয় এই অভিযোগ এখন অনেক মানুষের। কেন মাস্ক পরলে গলা ব্যাথা হয় এর পিছনে অনেক কারণ রয়েছে।

নোংরা মাস্ক এবং গলা ব্যাথা:

আমরা যেমন আমাদের হাত পরিষ্কার রাখতে হ্যান্ডওয়াশ বা সাবান ব্যবহার করি তেমন আমাদের কাপড় চোপড়ও পরিষ্কার রাখা দরকার। আমরা প্রতিদিন যে মাস্ক পরি তা প্রতিদিন পরিষ্কার করতে হবে। ধুলা, ময়লা গলা ব্যাথার কারণ হতে পারে। দীর্ঘ সময় মাস্ক পরে থাকার পর পরিষ্কার না করলে এই কণাগুলো মাস্কে জমে। আর ক্ষুদ্র কণাগুলো গলাতে প্রবেশ করে গলা ব্যাথা সৃষ্টি করে। এক্ষেত্রে যাদের অ্যালার্জির সমস্যা আছে তাদের ঝুঁকি বেশি।

জোরে কথা বলা:

মাস্ক পরলে মানুষ সাধারণভাবে স্বাভাবিকের চেয়ে জোরে কথা বলে। তার সামনের মানুষের সুবিধার্থে মানুষ এমনটা করে। এতে করে গলায় প্রদাহ সৃষ্টি হয় এবং এক পর্যায়ে গলা ব্যাথা হয়।

প্রতিরোধ:

গলা ব্যাথার এই সমস্যা দূর করতে হাত ধোঁয়ার পাশাপাশি মাস্কও ধুতে হবে। প্রতিবার ব্যবহারের পর গরম পানি এবং সাবান দিয়ে মাস্ক পরিষ্কার করতে হবে। ধোয়ার পর ভালোভাবে রোদে শুকাতে হবে। এজন্য সাথে কম করে হলেও দুইটা মাস্ক রাখতে হবে যেনো একটা ভেজা থাকলে আরেকটা ব্যবহার করা যায়। সেই সাথে মাস্ক পরা অবস্থায় মাস্কে হাত দেওয়ার আগে হাত ভালোভাবে স্যানিটাইজ করে নিতে হবে।

সূত্র: টাইমস অফ ইন্ডিয়া

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here